শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন

যেভাবে মন্ত্রী হয়েছিলেন তারা

যেভাবে মন্ত্রী হয়েছিলেন তারা

নন্দিত ডেস্ক : আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে পদত্যাগ করেছেন মন্ত্রীপরিষদের চার টেকনোক্র্যাট।

সোমবার (০৬ নভেম্বর) মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ নির্দেশ দেন।

পদত্যাগ করা চার মন্ত্রী হচ্ছেন- বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান, ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তারা অনির্বাচিতভাবে সরকারের বিশেষ বিবেচনায় মন্ত্রীপরিষদে স্থান পেয়েছিলেন।

চার মন্ত্রীর পরিচয়

ইয়াফেস ওসমান: ১৯৪৬ সালের ১ মে চট্টগ্রামে জন্মগ্রহন করেন ইয়াফেস ওসমান। বিখ্যাত কথাসাহিত্যিক শওকত ওসমানের ছেলে ইয়াফেস ওসমান পেশায় একজন স্থপতি। তাছাড়া তিনি একাধারে এক রাজনীতিবিদ এবং লেখক। তাছাড়া তিনি বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক।

২০০৯ সালের ৬ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রধানমন্ত্রিত্বে গঠিত মহাজোট সরকারে টেকনোক্র্যাট কোটায় বিজ্ঞান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেন ইয়াফেস ওসমান। পরবর্তীতে ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি পুনরায় দ্বিতীয়বারের মতো একই মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ছিলেন তিনি। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই তিনি ওই মন্ত্রণালয়ের পূর্ণাঙ্গ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন।

অধ্যক্ষ মতিউর রহমান: ১৯৪২ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহ সদর উপজেলার আকুয়া গ্রামে জন্মগ্রহন করেন অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। বিভিন্ন কলেজে শিক্ষকতার মাধ্যমেই পেশাগত জীবনে আসেন তিনি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদান করেন ১৯৫৮ সালে। ১৯৯৬ সাল থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত মোট ১৮ বছর ধরে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে দুইবার ছিলেন সাধারন সম্পাদক। তাছাড়া ময়মনসিংহ-৪ আসন থেকে ১৯৮৬, ১৯৯৬ ও ২০০৮ এই তিন মেয়াদে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন মতিউর রাহমান।

বর্তমান সরকারের শুরু থেকেই দায়িত্ব পালন করে আসছিল ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। সর্বশেষ ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রধানমন্ত্রিত্বে গঠিত মহাজোট সরকারে টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেন তিনি।

নুরুল ইসলাম বিএসসি: চট্টগ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মধ্যবিত্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন নুরুল ইসলাম বিএসসি। তিনি একাধারে ব্যবসায়ী, শিল্পপতি ও লেখক। তার লেখা এখন পর্যন্ত ৩২টি গ্রন্থ রয়েছে। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-৯ আসন হতে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১৪ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রধানমন্ত্রিত্বে গঠিত মহাজোট সরকারে টেকনোক্র্যাট কোটায় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক র্কমসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেন নুরুল ইসলাম বিএসসি।

মোস্তাফা জব্বার: ১৯৪৯ সালের ১২ই আগস্ট সুনামগঞ্জে জন্মগ্রহন করেন মোস্তাফা জব্বারের। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ থেকে মাস্টার্স পাশ করেন ১৯৭৪ সালে। সাংবাদিকতার মাধ্যমেই সুচনা হয় তার কর্মজীবনের। ১৯৮৮ সালে তার প্রতিষ্ঠান কর্তৃক তৈরি বিজয় বাংলা কিবোর্ড এখন পর্যন্ত এদেশে বহুল ব্যবহৃত। তিনি বিসিএসের এবং বেসিসের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন। রাজনীতির পাশাপাশি সাহিত্য ও নাট্য চর্চার সাথেও জড়িত আছেন।

অনেকটাই চমকের মতো এ বছরের ২ জানুয়ারি মন্ত্রিসভার সর্বশেষ পুনর্গঠনের সময় ডাক, টেলিযোগাযোগ এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন মোস্তাফা জব্বার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *







© All rights reserved © 2017 Nonditosylhet24.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ