২৭ মে ২০২০ ০৪:২৪ অপরাহ্ন

২৭ মে ২০২০ ০৪:২৪ অপরাহ্ন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

এপ্রিল ২৪, ২০২০
৩:৩০ পূর্বাহ্ন


সুখবর এলো না করোনার ওষুধ পরীক্ষায়


করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় রেমডেসিভিরকে সম্ভাবনাময় ওষুধ মনে করা হলেও অবশেষে আশানুরূপ ফলাফল দেয়নি বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম দ্যা গার্ডিয়ান এ তথ্য প্রকাশ করেছে।এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম দাবি করেছিলেন যে করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার হওয়া ওষুধগুলোর মধ্যে এটি 'প্রতিশ্রুতিশীল'।তবে পরীক্ষামূলকভাবে ২৩৭ জন রোগীর মধ্যে একটি পরীক্ষা চালানো হয়। যাদের মধ্যে কয়েকজনের দেহে রেমডিসিভার দেয়া হয়ছিলো। এবং পরীক্ষার অংশ হিসেবে কয়েকজনকে ওষুধটি থেকে বিরত রাখা হয়। ফলাফলে দেখা গেছে ওষুধটি কোনো কাজ করেনি। এমনকি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার কারণে পরীক্ষাটি সাথে সাথেই বন্ধ করে দেয়া হয়।করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পরীক্ষায় ব্যর্থতার খবরটি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ক্লিনিকাল ট্রায়াল ডাটাবেজে দেয়া

হলেও পরে তা সরিয়ে ফেলা হয়। তারিক জাসেরেভিচ নামে সংস্থাটির এক মুখপাত্র ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, 'দুর্ঘটনাবশত এটি ট্রায়াল ডাটাবেজে বেশি দ্রুত তুলে দেয়া হয়েছিলো'।তারিক জাসেরেভিচ বলেন, করোনার ভ্যাকসিন পরীক্ষা সম্পর্কে আমরা সংস্থার ওয়েবসাইটে একটি খসড়া প্রতিবেদন আপলোড করি। কিন্তু পরে নজরে আসার সাথে সাথেই তা নামিয়ে ফেলা হয়েছে। এটি নিয়ে আরো আলোচনা পর্যালোচনা চলছে। কোনো প্রকার সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর জন্য আমরা সম্পূর্ণ প্রতিবেদনের অপেক্ষা করছি।মার্কিন সংস্থা গিলিয়েড সায়েন্স ওষুধটি তৈরি করেছে। এর আগে যা ইবোলা ভাইরাসের প্রতিষেধক হিসেবেও এটিকে পরীক্ষা চালালেও তেমন ভালো কোনো ফলাফল আসেনি। কোভিড -১৯ এর বিরুদ্ধে কাজ করতে পারে এমন ওষুধের প্রতিযোগিতায় অনেক চিকিৎসক কোনো পরীক্ষার অপেক্ষা না করেই "সহানুভূতির ভিত্তিতে" রোগীদের রেমডেসিভাইর দিয়েছেন।