৩১ মে ২০২০ ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

৩১ মে ২০২০ ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

মে ২১, ২০২০
৯:৩৫ পূর্বাহ্ন


বাউল রণেশ ঠাকুরের গানের ঘরে আগুন দেয়ায় যুবক আটক


বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের শিষ্য বাউল রণেশ ঠাকুরের বাউল গানের আসরের ঘর ও যন্ত্রাংশ পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় ফরহাদ আহমদ (২৫) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ। ফরহাদ দিরাই উপজেলার উজানধল গ্রামের এলাম উদ্দিনের পুত্র ফরহাদ আহমদ (২৫)। এ ঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করেছেন বাউল রণেশ ঠাকুর। বুধবার বিকালে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ ও পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান দিরাই উপজেলার উজানধল গ্রামের গিয়ে বাউল রণেশ ঠাকুরের বাস্তুভিটা পরিদর্শন করেছেন। জেলা প্রশাসক তাৎক্ষণিক ঘর তোলার জন্য ৩ বান টিন বরাদ্দ দিয়ে তার আসরঘর করে দেয়ার অঙ্গীকার করেছেন। পুলিশ সুপার বাউলকে ন্যায় বিচার পাবার আশ্বাস দিয়েছেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ বলেন, আমি বাউলের বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি এখনো মর্মাহত। আমরা তাকে নগদ সহায়তার পাশাপাশি টিনও দিয়ে এসেছি। সরকারিভাবে আমরা তার আসরঘর তৈরি করে দেব। পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, আমরা বাউলের ঘর পোড়ার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছি। এ ঘটনায় তিনি অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। আমরা সন্দেহভাজন হিসেবে এক যুবককে আটক করেছি। তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। বাউলের ঘর ও যন্ত্রাংশ যারা পুড়িয়ে দিয়েছে আমরা তাদের সবাইকে খুঁজে বের করব। এর আগে ইউএনও সফি উল্লাহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন। উল্লেখ্য, গত রোববার রাতে বাউল রণেশ ঠাকুরের গানের আসর ঘর পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এতে তার ৪০ বছরের সঙ্গীত সাধনার সব যন্ত্রপাতিসহ গানের খাতাটিও পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।