১২ অগাস্ট ২০২০ ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

১২ অগাস্ট ২০২০ ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জুলাই ২১, ২০২০
৭:০১ অপরাহ্ন


অবশেষে দিল্লির মারকাজ মামলায় মুক্তি ৭৯ বাংলাদেশির


ভারতে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারি নিয়ন্ত্রণে জারি লকডাউনের মধ্যে নিজামুদ্দিন মারকাজে আয়োজিত তাবলিগি জামাতে অংশগ্রহণকারী ৭৯ বাংলাদেশিকে মুক্তি দিয়েছে দিল্লির এক আদালত। গতকাল সোমবার লকডাউনের মধ্যে ভিসানীতি লঙ্ঘনসহ বিভিন্ন অভিযোগ স্বীকার করে নিলে, জরিমানার শর্তে তাদের মুক্তি দেন আদালত। বাংলাদেশিদের পাশাপাশি এদিন ৪২ জন কিরগিজকেও মুক্তি দেওয়া হয়। এ খবর দিয়েছে দ্য হিন্দুস্তান টাইমস। খবরে বলা হয়, অভিযুক্ত বাংলাদেশিদের পক্ষে আদালতে লড়েন আশিমা মান্ডলা। তিনি জানান, প্রত্যেক বাংলাদেশিকে ৫ হাজার রুপি জরিমানা পরিশোধ করে মুক্তিলাভের অনুমোদন দেন দিল্লির মেট্রোপলিটান ম্যাজিস্ট্রেট জিতেন্দ্র প্রতাপ সিং। অন্যদিকে, মেট্রোপলিটান মেজিস্ট্রেট রোহিত গুলিয়া ৪২ জন কিরগিজকে একই পরিমাণ জরিমানা মেটানোর বদলে মুক্তির অনুমোদন দেন। মামলার বাদী, ডিফেন্স কলোনির উপ-বিভাগীয় মেজিস্ট্রেট, লাজপত নগরের সহকারী পুলিশ কমিশনার ইন্সপেক্টর নিজামুদ্দিন আদালতের নির্দেশনা মেনে নিতে সম্মতি জানানোর পর তাদের মুক্ত করে দেয়া হয়। তবে তিন জন বাংলাদেশি ও আট জন কিরগিজ নিজেদের দোষ স্বীকারে অস্বিকৃতী জানান ও আদালতের সামনে বিচারের দাবি করেন। প্রসঙ্গত, নিজামুদ্দিনের জামাতে অংশ নেয়ার অভিযোগে ৩৬টি দেশ থেকে ভারত যাওয়া ৯৫৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করেছিল পুলিশ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির বিভিন্ন ধারা, মহামারী আইন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন এবং ১৪৪ ধারা লঙ্ঘনের অপরাধে মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়া, ভারতীয় দ-বিধির ১৮৮ ধারা, ২৬৯ ধারা, ২৭০ ধারা ও ২৭১ ধারার অধীনেও তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।