১২ অগাস্ট ২০২০ ১২:২৩ পূর্বাহ্ন

১২ অগাস্ট ২০২০ ১২:২৩ পূর্বাহ্ন

নন্দিত ডেস্ক

জুলাই ২৭, ২০২০
৫:২৯ অপরাহ্ন


আরও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত সোয়া ২ লাখ ছাড়িয়ে


দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন আরও ২ হাজার ৭৭২ জন। ফলে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল দুই লাখ ২৬ হাজার ২২৫ জনে। এসময়ে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৭ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এ পর্যন্ত এ ভাইরাসটিতে মারা গেলেন দুই হাজার ৯৬৫ জন। আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৮০১ জন এবং এখন পর্যন্ত এক লাখ ২৫ হাজার ৬৮৩ জন সুস্থ হয়েছেন। সোমবার (২৭ জুলাই) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২১টি পরীক্ষাগারে, সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৫৪৪টি নমুনা। আগের নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৮৫৯টি। এ পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১১ লাখ ২৪ হাজার ৮১৭টি। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৫৬ শতাংশ, এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ২০ দশমিক ১২ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৫ দশমিক ৫৬ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৩১ শতাংশ। নাসিমা সুলতানা জানান, ৩৭ জনের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৩৩ জন এবং বাড়িতে মারা গেছেন চার জন। এদের মধ্যে পুরুষ ২৬ জন এবং নারী ১১ জন। এ পর্যন্ত পুরুষ মারা গেছেন দুই হাজার ৩৩২ জন, যা ৭৮ দশমিক ৬৫ শতাংশ এবং নারী মারা গেছেন ৬৩৩ জন, যা ২১ দশমিক ৩৫ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় যারা মৃত্যুরবরণ করেছেন তাদের বয়স বিভাজনে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে সাত জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে আট জন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। এ পর্যন্ত বয়স বিভাজনে মৃত্যু হয়েছে শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে ১৮ জন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৩০ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ৮৪ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১৯৮ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪২২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৮৫৯ জন এবং ষাটোর্ধ্ব এক হাজার ৩৫৪ জন। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগভিত্তিক মৃতের সংখ্যা—ঢাকা বিভাগে ২৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে পাঁচ জন, খুলনাতে দুই জন, ময়মনসিংহে একজন, রংপুরে তিন জন এবং বরিশাল বিভাগে দুই জন। বিভাগভিত্তিক এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা—ঢাকা বিভাগে এক হাজার ৪৩২ জন, চট্টগ্রামে ৭২৬ জন, রাজশাহীতে ১৭৪ জন, খুলনাতে ২০৮ জন, বরিশালে ১১২ জন, সিলেটে ১৪০ জন, রংপুরে ১১ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৬২ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৫৫০ জন, আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৬৭৫ জন। মোট আইসোলেশনে গেছেন ৪৭ হাজার ৭৭৬ জন, ছাড়া পেয়েছেন ২৮ হাজার ৭৬৯ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার সাত জন। তিনি আরও জানান, ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৪৫১ জন, এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে গেছেন চার লাখ ২৭ হাজার ৯৯৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পেয়েছেন দুই হাজার ৮৬০ জন, আর এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়া পেয়েছেন তিন লাখ ৬৯ হাজার ৬০৭ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৫৮ হাজার ৩৯০ জন।