২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি

সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০
৮:৫২ অপরাহ্ন


বিজিবি জওয়ানদের পিটিয়ে মহিষ ছিনিয়ে নিল চোরাকারবারীরা


জৈন্তাপুর উপজেলার ভারত সীমান্ত স্থানিয় চোরাকারবারিদের দখলে। প্রতিদিন ভরত থেকে শ' শ' গরু, মহিষ, মাদকদ্রব্য আসলেও বিজিবির কোন টহল চোখে পড়েনা। মাঝে মধ্যে সীমান্ত এলকায় বিজিবি লোক দেখানো অভিযান পরিচানা করে। আর সেই অভিযান পরিচালা করতে গিয়ে উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের ডিবির হাওর সীমান্তের ঘিলাতৈল এলাকায় রোববার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে চোরাকারবারীর হামলার শিকার হয় বিজিবি'র টহল দলের জওয়ানরা। এ ঘটনায় বিজিবি জৈন্তাপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ । বিজিবি ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, ভোর রাতে ভারত থেকে অবৈধ পথে চোরাকারবারীরা ভারতীয় মহিষ নিয়ে বাংলাদেশ প্রবেশ করে। জৈন্তাপুর সীমান্ত ফাড়িঁর বিজিবি'র ৫জন সদস্য ঘিলাতৈল এলাকায় টহল কাজ শুরু করেন। এ সময় অভিযান চালিয়ে ৫টি ভারতীয় মহিষ আটক করা হয়। তখন স্থানীয় গ্রামের লোকজন এবং চোরাকারবারীরা সংগবদ্ধ হয়ে বিজিবি'র টহল দলের উপর হামলা করে মহিষ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় বিজিবি'র ২/৩ জন্য সদস্য কিছুটা আহত হন। আত্মরক্ষায় তখন বিজিবি সদস্যরা নিরাপদ স্থানে চলে যান। এক পর্যায়ে আরো ৮জন বিজিবি সদস্য টহল কাজে যোগ দেয়। বিজিবির উপর হামলার খবর পেয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিন আলী ও ওসি তদন্ত ওমর ফারুক একদল পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। বিজিবি দুই'টি টহল দল যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে ৫টি মহিষ উদ্ধার করে। উদ্ধার হওয়ার ৫টি মহিষ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি'র নিকট রাখা হবে বলে জানা গেছে। এই ঘটনায় জৈন্তাপুর মডেল থানায় সরকারী কাজে বাধাঁ দেওয়ার অভিযোগ করে বিজিবি'র পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিন আলী এই ঘটনায় মামলা দায়ের করার কথা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত ১৬ জন হামলাকারীকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এ ব্যাপারে সিলেট-১৯ বিজিবি‘র অধিনায়ক লে. কর্নেল মো: রফিকুল ইসলাম পিএসসি)জানান, ভারত থেকে অবৈধভাবে বাংলাদেশ মহিষ প্রবেশকালে জৈন্তাপুর সীমান্ত ফাড়িঁর বিজিবি'র টহল দল ঘিলাতৈল এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এসময়ে ঘিলাতৈল গ্রামের স্থানীয় লোকজন ও গরু চোরাকারবারীরা বিজিবি'র উপর হামলা চালিয়ে ভারতীয় মহিষ ছিনিয়ে নেয়। হামলার ঘটনার জৈন্তাপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়। উদ্ধার হওয়ার ৫টি মহিষ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি'র জিম্মায় রাখা হয়েছে।