১৩ মে ২০২১ ০২:৩১ পূর্বাহ্ন

১৩ মে ২০২১ ০২:৩১ পূর্বাহ্ন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

এপ্রিল ২৬, ২০২১
৪:৫৩ অপরাহ্ন


ইসলামাবাদের প্রস্তাবে নয়াদিল্লি চুপ


ইসলামাবাদের প্রস্তাবে নয়া দিল্লি চুপ। মুখে কুলুপ এঁটেছে তারা। অক্সিজেনসহ মেডিকেল সরঞ্জাম সরবরাহের জন্য ভারতের প্রতি প্রস্তাব দিয়েছিল পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সরকার। কিন্তু পাকিস্তানের সেই প্রস্তাব বা সহায়তা গ্রহণের বিষয়ে কট্টরপন্থি বিজেপি প্রশাসনে কোনোই লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। এতে বলা হয়েছে, ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লিতে অক্সিজেন সঙ্কট, হাসপাতালে বেড সঙ্কট এবং রেকর্ড সংখ্যক মানুষের মৃত্যতেও পাকিস্তানের প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি ভারত। পাকিস্তান প্রস্তাব দিয়েছিল সীমান্ত খুলে দিতে, যাতে তারা প্রতিবেশী এ দেশটিকে অক্সিজেন এবং অন্যান্য চিকিৎসা সরঞ্জাম সহায়তা দিতে পারে। আঞ্চলিক অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করেন দ্রুত বিস্তার করছে এই করোনা মহামারি।

এই মহামারি আন্তঃসীমান্ত সহযোগিতার এক ব্যতিক্রমী সুযোগ এনে দিতে পারে। নয়া দিল্লি ভিত্তিক শান্তি বিষয়ক কর্মী ড. দেবিকা মিত্তাল বলেছেন, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিরোধ নিষ্পত্তিতে সীমান্ত বন্ধ করে দেয়া এবং বাণিজ্য স্থগিত করে দেয়ার কোনো সমাধান হবে না। এ সমস্যার সমাধান করতে হলে উভয় দেশকেই এগিয়ে আসতে হবে এবং আলোচনা শুরু করতে হবে। ড. মিত্তাল এ সময় উভয় দেশের রাজনৈতিক নেতৃত্বকে একে অন্যের সাহায্যে শর্তহীনভাবে এগিয়ে আমার আহ্বান জানান। বিশেষ করে এই মহামারিকালে। তিনি বলেন, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে যেকোনো পরিস্থিতিতে উন্নত সম্পর্ক থাকা উচিত। তিনি আরো বলেন, এই করোনা ভাইরাসকে পরাজিত করতে ব্যর্থ হয়েছে ভারত ও পাকিস্তান দু’দেশই। এক দেশে টিকা নেয়নি। অন্যদেশে অক্সিজেন সঙ্কট। উভয় দেশই পারমাণবিক শক্তিধর। কিন্তু দুই দেশেরই সম্মিলিতভাবে ভয়াবহ এই মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্যর্থতা রয়েছে।