২১ জুন ২০২১ ১২:৪৩ অপরাহ্ন

২১ জুন ২০২১ ১২:৪৩ অপরাহ্ন

নন্দিত ডেস্ক

মে ২৩, ২০২১
৮:৩৭ পূর্বাহ্ন


শাবাব-মাহি হত্যা মামলা: চার বছর পর আসামি গ্রেপ্তার


মৌলভীবাজারে ২০১৭ সালের ৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় শাবাব ও মাহিকে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রাবাস এলাকায় ডেকে নিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। আলোচিত এ হত্যাকাণ্ডের আসামি ফাহিম মুনতাসির (২১)কে চার বছর পর গ্ৰেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

শনিবার (২২ মে) দিবাগত রাতে হবিগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ তথ্য জানিয়েছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর পুলিশ সুপার মো. আবু ইউসুফ।

তিনি বলেন, চার্জশিট থেকে আসামিকে বাদ দেওয়ায় মামলা বাদিনী আদালতে নারাজি জানিয়েছেন। আমরা তদন্ত করে উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করেছি। মামলার তদন্তের জন্য পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে। পুলিশ আদালতে তার রিমান্ড চাইবে। অচিরেই মামলাটির পুলিশি প্রতিবেদন আদালতে জমা দেওয়া হবে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় শাবাব ও মাহিকে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রাবাস এলাকায় ডাকা হয়। সেখানে শাবাব ও মাহিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। এ সময় ঘটনাস্থলে থাকা শাবাব-মাহির বন্ধুরা ও পথচারীরা গুরুতর অবস্থায় তাদের মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে পৌঁছালে চিকিৎসক তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় নিহত শাবাবের মা সেলিনা রহমান চৌধুরী মৌলভীবাজার মডেল থানায় ১২ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানায়, লোমহর্ষক এ হত্যাকাণ্ডের দীর্ঘ ১ বছর পর আদালতে চার্জশিট দায়ের করেন মডেল থানার তৎকালীন ওসি সোহেল আহাম্মদ। তিনি তুষারসহ ১০ জনকে আসামি করে চার্জশিট জমা দেন। কিন্তু বাকী আসামিকে চার্জশিটের অন্তর্ভুক্ত না করায় বাদীর নারাজির প্রেক্ষিতে মামলা পিবিআইতে প্রেরণ করেন আদালত।