২৭ জুলাই ২০২১ ০৯:০১ অপরাহ্ন

২৭ জুলাই ২০২১ ০৯:০১ অপরাহ্ন

ছাতক প্রতিনিধি

জুন ২০, ২০২১
২:৩১ অপরাহ্ন


ছাতকের নোয়ারাই ও সিংচাপইড় ইউপি’র ভোটগ্রহণ সোমবার : সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন


 ছাতক উপজেলার  নোয়ারাই ও সিংচাপইড় ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ আগামীকাল সোমবার। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভোটারদের মাঝে পরিলক্ষিত হচ্ছে ব্যাপক উৎসাহ- উদ্দীপনা।  প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ছাতকের দু'টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের  আর মাত্র একদিন বাকি থাকায় চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন শেষ মুহূর্তের প্রচারণায়। দিন নেই রাত নেই নিজ নিজ প্রার্থীর পক্ষে ভোটারদের মন জয় করতে কর্মী-সমর্থকেরা চালিয়ে যাচ্ছেন জোর প্রচেষ্টা। প্রার্থীদের জয়-পরাজয় নিয়ে আলোচনায় মেতে উঠেছেন ভোটাররা। ভোটারদের আলাপচারিতায়ও প্রার্থীদের জয়-পরাজয়ের হিসেবে নিকেষ ফুটে ওঠছে। তাদের মতে হাড্ডা-হাড্ডি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে। এবারের নির্বাচনে অধিকাংশ  প্রার্থী আওয়ামী ঘরনার হওয়ায় নির্বাচন অনেকটাই নিরপেক্ষ হবে বলে অভিমত অনেকের। দু'টি ইউনিয়নেই ত্রি -মুখী লড়াই হবে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।নোয়ারাই ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন ৫ জন। সিংচাপইড়  ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ৬জন প্রার্থী। 

 নোয়ারাই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে চশমা প্রতীকে লড়ছেন বর্তমান চেয়ারম্যান দেওয়ান পীর আবদুল খালিক রাজা, নৌকা প্রতীকে লড়ছেন আফজাল আবেদীন আবুল, নাসির উদ্দীন লড়ছেন মোটর সাইকেল প্রতীকে, আনারস প্রতীকে লড়ছেন  মোশারফ হোসেন ও ঘোড়া প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্ব›িদ্বতায় রয়েছেন সামছুর রহমান। 

সিংচাপইড় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোটর সাইকেল প্রতীকে লড়াই করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান মোজাহিদ আলী, নৌকা প্রতীকে লড়ছেন সাবেক চেয়ারম্যান সাহাব উদ্দিন সাহেল, লাঙ্গল প্রতীকে লড়ছেন আনোয়ার হোসেন, চশমা প্রতীকে লড়ছেন রাসেল মিয়া, সায়েম আহমদ আনারস প্রতীক ও ফারুক মিয়া লড়ছেন রজনীগন্ধা প্রতীক নিয়ে। 

 উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, দু'টি ইউনিয়নে মোট ভোটার রয়েছেন ৪২ হাজার ৭শ' ১৪জন। এর মধ্যে নোয়ারাই ইউনিয়নের মোট ভোটার ২৬ হাজার ১শ' ৬৫জন ও সিংচাপইড় ইউনিয়নের মোট  ভোট ১৬ হাজার ৫শত ৪৯।   নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফয়েজুর রহমান। তিনি বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যেই প্রিজাইডিং ও পোলিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে। ভোটের দিন কেন্দ্রে পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ, র‌্যাব ও আনসার সদস্যের পাশাপাশি বিজিবি মোতায়েন থাকবে। ফলে নিñিদ্র নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ  ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হবে।