বন্ধুর সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা, আইসিইউতে শাবি ছাত্রী

সিলেটের এয়ারপোর্ট রোডে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মুবাশ্বেরা। বর্তমানে তিনি সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ইশরাত ইবনে ইসমাইল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বুধবার (১০ আগস্ট) সিলেটের এয়ারপোর্ট রোডে এ ঘটনা ঘটে।

আহত শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইপিই) বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক ইশরাত ইবনে ইসমাইল বলেন, বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে গিয়ে শিক্ষার্থী মুবাশ্বেরা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন। পরে তার বন্ধুরা আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও আমি হাসপাতালে দেখতে যাই।

আহত শিক্ষার্থীর সহপাঠী সাজ্জাদুল ইসলাম বলেন, আমরা দুটো মোটরসাইকেলে চারজন বন্ধু ঘুরতে গিয়েছিলাম। বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে এয়ারপোর্ট রোডে রাস্তা উঁচু-নিচু থাকায় মোটরসাইকেলের পেছন থেকে মুবাশ্বেরা পড়ে যায়। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা. তানভীর ইসলাম নাবিল জানান, দুর্ঘটনায় মাথার ডানদিকে আঘাত পেয়েছেন মুবাশ্বেরা। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছে। এখনও তার জ্ঞান ফেরেনি। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তার জ্ঞান না ফিরলে, আমরা পরবর্তীতে অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।