২৭ মে ২০২০ ০২:৩৭ অপরাহ্ন

২৭ মে ২০২০ ০২:৩৭ অপরাহ্ন

নন্দিত ডেস্ক

ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২০
৫:৫৭ অপরাহ্ন


পাপিয়ার অপকর্ম বিষয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের


নন্দিত ডেস্ক:দল আগে থেকে বুঝতে পারলে পাপিয়া এসব অপকর্ম করতে পারত না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘শামীমা নূর পাপিয়ার পরিচয় যেটাই হোক, অপরাধ অনুযায়ী তার বিচার হবে। আমাদের সরকারের আমলে এ ধরনের অনেক বিচার প্রক্রিয়া চলেছে।’ সোমবার সচিবালয়ে এশিয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব মন্তব্য করেন। উল্লেখ্য, শামীমা নূর পাপিয়া ছিলেন নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক। যুবলীগ নেত্রী পাপিয়া পিউ নামেই বেশি পরিচিত তিনি। তার স্বামী মফিজুর রহমান সুমন এক সময় নরসিংদী শহর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ছিলেন। পরে ছিলেন নরসিংদীর প্রয়াত পৌর মেয়র লোকমানের বডিগার্ড। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ততার পাশাপাশি অস্ত্র-মাদকসহ নারী বিষয়ক অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিলেন পাপিয়া। এ বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকার দলের হোক কিংবা বাইরের হোক- কোনো অপরাধীকে পার পেয়ে যেতে দেইনি। সব অপরাধীকেই বিচারের আওতায় আনা হয়েছে। পাপিয়ার পরিচয় যেটাই হোক, অপরাধী হিসেবে এবং অপরাধ অনুযায়ী বিচার হবে।’ পাপিয়ার মক্ষীরানী হয়ে ওঠার পেছনে যারা আছেন, ‘তাদের খুঁজে বের করা হবে কি না প্রশ্নে সেতুমন্ত্রী বলেন, হবে না কেন? কারো অপরাধের বিচার করতে গেলে তো পেছনের লোকও খোঁজা হয়। তারা সামনে আসবে না, এটা মনে করার কোনো কারণ নেই। আমাদের সরকারের আমলে এ ধরনের বিচার প্রক্রিয়া চলেছে। বিষয়টি যখন আদালতে যাবে, তখন তো সবকিছুই আসবে।’ পাপিয়ার মতো অনেকে আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে অপকর্ম করছে কিনা প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করে বলতে চাই, অন্য সব সরকারের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকারে পার্থক্যটা হচ্ছে - অন্যান্য সরকার অপরাধী-অপকর্মকারীদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসার বিষয়টি অবহেলা ও উপেক্ষা করেছে। তাই অপরাধীরা শাস্তি পায়নি। আমরা অপরাধীর দল দেখি না।’ তিনি যোগ করে, ‘এই সরকারের সরকারের পক্ষ থেকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে নির্দেশ দেয়া আছে, পরিচয়ই যেটাই হোক অপকর্মের জন্য যেন অপরাধীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়। বিচার করা হয়।’ দলীয়ভাবে সদ্য বহিষ্কৃত যুবলীগ নেত্রী পাপিয়াকে অপরাধী হিসেবে শনাক্ত করতে কি আওয়ামী লীগ ব্যর্থ হয়েছি কিনা প্রশ্নে ওবায়দুল কাদের পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে ধরেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কি সরকারের বাইরে? এ সরকারের আমলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অপরাধের জন্য যাদের গ্রেফতার করছে, শাস্তি দিচ্ছে- এটা কি সরকারের ইচ্ছার বাইরে হচ্ছে? সরকারের সায় এবং এসব বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি আছে বলেই আজকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসব অপরাধীদের ধরছে বলে মন্তব্য করেন সেতুমন্ত্রী। প্রসঙ্গত, সমাজসেবার আড়ালে অসহায় সুন্দরী নারীদের নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে অনৈতিক ব্যবসা এবং অস্ত্র-মাদকসহ বিভিন্ন অনৈতিক কাজ করে আসছিলেন যুবলীগ নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া। শনিবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দেশত্যাগের সময় তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ সময় তার আরো চার সহযোগী গ্রেফতার হন। গ্রেফতার হলেন- পাপিয়ার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরী ওরফে মতি সুমন (৩৮), সাব্বির খন্দকার (২৯) ও শেখ তায়্যিবা (২২)।