২৭ অক্টোবর ২০২০ ১২:০৮ অপরাহ্ন

২৭ অক্টোবর ২০২০ ১২:০৮ অপরাহ্ন

নন্দিত সিলেট

অক্টোবর ১৫, ২০২০
৬:২৩ অপরাহ্ন


উত্তাল সিলেট, দিনভর বিক্ষোভ


সিলেটে পুলিশ হেফাজতে নির্যাতনে যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। গতকাল বুধবার সারাদিনই প্রতিবাদ-বিক্ষোভে মুখরিত ছিল সিলেট নগর। অভিযুক্ত পুলিশদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিভিন্ন সংগঠন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নগরে মশাল মিছিল, মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে। এসব কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, ‘পুলিশ মানুষের জানমালের হেফাজত করবে কিন্তু তারাই যদি নির্যাতন, হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকে তাহলে আমাদের নিরাপত্তা দেবে কে?’ আন্দোলনকারীরা রায়হান আহমদকে নির্যাতনে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানান। ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ : পুলিশি নির্যাতনে যুবকের মৃত্যু ও দেশে অব্যাহত ধর্ষণের প্রতিবাদে মশাল মিছিল করেছে ‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ, সিলেট’। গতকাল

বুধবার সন্ধ্যা ছয়টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে এই মশাল মিছিল শুরু হয়ে জিন্দাবাজার, সিটি পয়েন্ট ঘুরে আবার শহীদ মিনারে এসে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট সিলেট নগর শাখার সভাপতি সঞ্জয় কান্ত দাসের সভাপতিত্বে ও ছাত্রফ্রন্ট সিলেট মহানগরের আহ্বায়ক সঞ্জয় শর্মার পরিচালনায় মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য দেন, ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলার সভাপতি সরোজ কান্তি, ছাত্রফ্রন্ট সিলেট মহানগরের সাধারণ সম্পাদক সাদিয়া নওশীন তাসনিম, ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক নাবিল এইচ, থিয়েটার মুরারিচাঁদের সহসাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ। এ সময় মশাল মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত হয়ে সংহতি জানান, বাংলাদেশে ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলার সাবেক সভাপতি মতিউর রহমান, ছাত্র ইউনিয়ন এমসি কলেজের সাবেক সভাপতি বিশ্বপা ভট্টাচার্য্য, নাগরিক আন্দোলন কর্মী মাহবুবুর রহমান রাসেল, লেখক ও কবি শামসুল আমিন। সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘যে পুলিশ বাহিনী জনগণের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকার কথা তারাই জনগণকে নির্যাতন করে খুন করছে। এটা কোনোভাবে মেনে নেওয়া যায় না। দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই পুলিশ ফাঁড়িতে একজন যুবককে খুন হতে হলো। অবিলম্বে এই হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানাই। অবিলম্বে যদি হত্যার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা না হয় তাহলে সিলেটবাসীকে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হবে।’ বক্তারা আরও বলেন, ‘এমসি কলেজসহ সারাদেশের ধর্ষণের সঙ্গে জড়িতদের দ্রæত বিচার ট্রাইব্যুনালে বিচার করতে হবে। ধর্ষকদের আশ্রয়-প্রশ্রয় দাতাদেরও আইনের আওতায় আনতে হবে।’ এ সময় বক্তারা ঢাকা থেকে নোয়াখালী অভিমুখে লংমার্চের সফলতা কামনা করেন এবং আগামীকাল শুক্রবার বিকেল চারটায় সিলেটে প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেন। সিলেট উন্নয়ন সংস্থার মানববন্ধন : দেশব্যাপী খুন, ধর্ষণ, নারী নির্যাতন বন্ধ এবং অপরাধীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সিলেট উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে নগরের কোর্ট পয়েন্টে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। সিলেট উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি আলী আহমদের সভাপতিত্বে ও সহ সভাপতি আলী আকবর রাজন এবং সাধারণ সম্পাদক কবির আহমদ খানের যৌথ পরিচালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল খালিক, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও উপদেষ্টা ডা. এ. এ. এম. শিহাব উদ্দিন, সিনিয়র সহসভাপতি রোটারিয়ান মো. মনিরুল ইসলাম, সহসভাপতি নাহিদা আক্তার রুমা, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুমিন লাহিন, অর্থ সম্পাদক শফিউল আলম শফিক, সমাজসেবা সম্পাদক হাবিবুর রহমান খোকন, প্রচার সম্পাদক শাহান আল মাহমুদ খান, সহ প্রচার সম্পাদক হাবিব উল্লাহ, শিশু ও সাহিত্য সম্পাদক পারভেজ আহমদ, মহিলা ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক রেহানা ফারুক শিরিন, নিরাপদ সড়ক চাই সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. লোকমান আলী, কার্যনির্বাহী সদস্য রকিব আল মাহমুদ, আবু হুরায়রা জাবের চৌধুরী প্রমুখ। এনডিএফ : দেশে একের পর এক নারী ধর্ষণ, নারী নির্যাতন ও পুলিশ হেফাজতে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের উদ্যোগে দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে সিলেট জেলা শাখার উদ্যোগে গতকাল বুধবার বিকেলে নগরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সুরমা মার্কেটস্থ সংগঠনের জেলা কার্যালয় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার সহ-সভাপতি মো. সুরুজ আলী। জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত শাহীন আলমের পরিচালনায় আরও বক্তব্য দেন, জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট সিলেট জেলা শাখার দপ্তর সম্পাদক রমজান আলী পটু, সিলেট শহর পূর্বাঞ্চল কমিটির সভাপতি মো. খোকন মিয়া, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. ছাদেক মিয়া, জাতীয় ছাত্রদল সিলেট জেলা শাখার যুগ্ম-আহবায়ক নাজমুল হোসেন, সিলেট জেলা হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. আনছার আলী, সিলেট জেলা প্রেস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি একে আজাদ সরকার প্রমুখ। বক্তারা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের দুঃশাসনে দেশে আজ চরম অরাজকতা বিরাজ করছে। সরকারের মদদপুষ্ট ছাত্রলীগ-যুবলীগের সন্ত্রাসীরা দেশের আনাচে-কানাচে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন বয়সী নারীদের ধর্ষণ করছে। অব্যাহত পুলিশি নির্যাতন, চাঁদার জন্য পুলিশ হেফাজতে হত্যা, খুন, গুম, ক্রসফায়ারসহ সকল রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শ্রমিক-কৃষক-জনগণকে সোচ্চার হতে হবে।’ রায়হানের পরিবারের পাশে শফিউল আলম চৌধুরী : পুলিশের হেফাজতে নির্যাতনে নিহত রায়হানের পরিবারের সদস্যদের সান্ত¡না জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। গতকাল বুধবার বিকেল ৪টায় নেহারীপাড়ার বাসায় গিয়ে তিনি নিহত রায়হানের মা সালমা বেগম, মামা, চাচা, ও অন্যান্য স্বজনদের খোঁজ নেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘ঘৃণ্য অপরাধীরা সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে একের পর এক ঘটনা ঘটাচ্ছে। এ ধরনের ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের অবশ্যই শাস্তির আওতায় আনতে হবে। অবশ্যই দায়ীদের বিচারের সম্মুখীন হতে হবে।’ এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কাউন্সিলর ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াস, কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান, জগদীশ চন্দ্র দাস, নজরুল ইসলাম নজু, শওকত উসমান, মকবুল হোসেন খান, কয়েছ আহমেদ, সামসুল ইসলাম মিলন, আব্দুল লতিফ রিপন, সালেহ আহমদ লিমন, জুমাদিন আহমদ, রাহাত তরফদার, এহিয়া আহমদ সুমন, সাইফুদ্দিন আহমেদ সাবের, আতিকুর রহমান আতিক, বিলাশ আহমেদ, সাফায়াত খান, ইমদাদুল হক জাহেদ, ফুজায়েল আহমদ জনি, মাসুম তালুকদার, নুরুল হুদা প্রমুখ। মহানগর বিএনপি : বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরের পক্ষে মহানগর বিএনপির সহ সভাপতি রেজাউল হাসান কয়েস লোদীর নেতৃত্বে মহানগর বিএনপি নেতৃবৃন্দ গতকাল নিহত রায়হান উদ্দিনের বাসায় গিয়ে পরিবারের সদস্যদেরকে সান্তনা জানান। এ সময় নেতৃবৃন্দ রায়হানের খুনিদের গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবি জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আমির হোসেন, প্রচার সম্পাদক শামীম মজুমদার, মহানগর তাঁতী দলের সেক্রেটারী মো. শওকত, স্বেচ্ছাাসেবক দল নেতা তুহিন নাগ, তানভির চৌধুরী তাছিন, মহানগর যুবদল আহবায়ক কমিটির সদস্য উছমান গনি, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য জোটের সভাপতি চমক দে পল্লু, যুবদল নেতা সাহেদ আহমদ, মল্লিকা আদর্শ সমাজ কল্যান সংস্থার উপদেষ্টা আব্দুলাহ শফি সাঈদ, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জুবের আহমদ, আব্দুর রহিম, রবি আহমেদ খন্দকার কাওসার প্রমুখ। বাম গণতান্ত্রিক জোট : নিহত রায়হানের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করে সান্তনা জানিয়েছেন সিলেট জেলা বাম গণতান্ত্রিক জোট নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা বাম গণতান্ত্রিক জোট ও বাসদ সমন্বয়ক আবু জাফর, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা আহ্বায়ক উজ্জল রায়, সিপিবি জেলা সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন সুমন, উদীচী সভাপতি এনায়েত হাছান মানিক, বাসদ নেতা প্রণব জ্যোতি পাল, ছাত্র ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক নাবিল এইচ প্রমুখ। আবুল কাহের শামীম : পুলিশের হেফাজতে যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম। এক বিবৃতিতে তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছেন।